শিক্ষামন্ত্রীর সম্প্রতি বঙ্গবন্ধু একাডেমিক ভবন উদ্বোধন করতে বগুড়ায় গিয়েছিলেন। সেখানে সবাই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মুখোশ পরে স্বাগতম জানায় শিক্ষামন্ত্রীকে। আর এ বঙ্গবন্ধুর মুখোশ পরা নিয়ে প্রধানমন্ত্রী রেগে ছিলেন শিক্ষামন্ত্রীর উপর। বর্তমানে বাংলাদেশে উদ্ভব হয়েছে কিছু উদীয়মান লেখক যারা বঙ্গবন্ধুর সঠিক ইতিহাস না জেনে, বিশ্লেষণ না করে অসংখ্য বই লিখেছেন। তাদের ব্যাপারে যদি প্রধানমন্ত্রী জানতে পারতেন তাহলে তাদের কষে চড় দিতেন এমনটা বললেন বিশিষ্ট বিশ্লেষক ড: আসিফ নজরুল

বঙ্গবন্ধুর মুখোশ কান্ডের কারণে শিক্ষামন্ত্রীর উপর চটেছেন প্রধানমন্ত্রী। বঙ্গবন্ধুর উপর লেখা যেনতেন বই গুলো পড়লে কি করতেন তিনি?
আমার ধারনা অন্তত কয়েকজনের গালে থাপ্পর দিতে চাইতেন।


উল্লেখ্য, বর্তমানে অমর একুশে বই মেলায় নতুন লেখকের ছড়াছড়ি। সকল উদীয়মান লেখকই লিখছে বঙ্গবন্ধুর জীবনী। বঙ্গবন্ধুর উপর লেখা উল্টাপাল্টা বই যদি সরকার পড়তো তাহলে হয়ত লেখকে গালে সজরে থাপ্পড় দিতেন। এমনটা বলেন আসিফ নজরুল। দেশের একজন বিশিষ্ট রাজনৈতিক গবেষক, লেখক, ঔপন্যাসিক এবং সুশীল সমাজবিদ হচ্ছেন ডক্টর মো: আসিফ নজরুল। বিশেষভাবে খ্যাতি অর্জন করেছেন তার সাহসী রাজনীতিক বিশ্লেষণের জন্য। তিনি সংবিধান নিয়ে বিশেষ ভাবে বিশ্লেষন করেন।

News Page Below Ad