দীর্ঘদিনের সঙ্গীর সঙ্গেই শেষ পর্যন্ত বাগদান সম্পন্ন করলেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্ন। দীর্ঘদিনের এই সঙ্গীর নাম ক্লার্ক গেফোর্ড। তিনি একজন টেলিভিশন উপস্থাপক। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা গেছে।
শুক্রবার এক অনুষ্ঠানে আরডার্নের বাম হাতের আঙুলে ডায়মন্ডের আংটি শোভা পেতে দেখা যায়। এরপর থেকে এই যুগলের এনগেজমেন্টের খবর ছড়িয়ে পড়ে। স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমকে আরডার্নের মুখপাত্র জানিয়েছেন, ইস্টার সানডের দিনে বাগদান সম্পন্ন করেছেন এই যুগল।
৩৮ বছর বয়সী জাসিন্ডা আরডার্ন নিউ জিল্যান্ডের সবচেয়ে কম বয়সী প্রধানমন্ত্রী। ২০১৭ সালের অক্টোবরে তিনি প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেন। তার দল লেবার পার্টি নির্বাচনে দ্বিতীয় স্থান অর্জন করলেও কোনও দল নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পাওয়ায় ছোট দল ফার্স্ট পার্টির নেতা উইনস্টন পিটার্সের সমর্থন নিয়ে সরকার গঠন করেন তিনি।
পাঁচ বছর আগে ক্লার্ক গেফোর্ড এর সঙ্গে পরিচয় হয় আরডার্নের। সে থেকে প্রেম। গত বছরের ২১ জুন এ জুটির একটি কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। নাম রাখা হয় নেভে তে আরোহা। একসাথেই থাকেন তারা। গেফোর্ড পূর্ণ সময়ের জন্যই মেয়ে নেভেকে দেখাশোনা করে থাকেন।
উল্লেখ্য, গত ১৫ মার্চে জুমআর নামাজের সময় নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে সন্ত্রাসী হামলার পর নিজের নেতৃত্বের জন্য ব্যাপকভাবে প্রশংসিত হন আরডার্ন।
বিডি২৪লাইভ