ইট কাঠের নাগরিক সভ্যতার শহরগুলো থেকে দ্রুতই হারিয়ে যাচ্ছে সবুজ। কিন্তু মানুষ তার শিকড়কে সহজে ভুলতে পারে না। সবুজে ভরা গ্রাম বাংলায় বেড়ে উঠা নাগরিক সমাজের একটা অংশ সবুজকে ধরে রাখতে চায় আবাসস্থলে। শৌখিন মানুষরা তাদের ঘরবাড়িতে সবুজকে ধরে রাখার জন্য একান্ত নিজস্ব ভাবনা আর প্রচেষ্টায় আপন আপন বাড়ির ছাদে তৈরি করছে ছাদ বাগান। সময়ের সাথে এ বাগান এখন আর শৌখিনতায় আটকে নেই। নিরাপদ সবজি দিয়ে পারিবারিক পুষ্টি চাহিদাপূরণ, পারিবারিক বিনোদন এবং অবসর কাটানোর এক মিলনমেলায় পরিণত হয়েছে এ ছাদ বাগানগুলো।
অতি সম্প্রতি সাভারের এক ছাদ বাগান নিয়ে ঘটে গিয়েছে অপ্রীতিকর ঘটনা, ব্যক্তিগত হিংসার বর্শবর্তী হয়ে ফ্লাট বাড়ির মালিক অন্য মালিকের ছাদ বাগানের গাছ দা দিয়ে কুপিয়ে তছনছ করেছেন, যার ভিডিও ইন্টারনেটের কল্যানে দেশবাসীর সামনে আসে।


এবার সেই গাছ নির্বিচারে কেটে ফেলায় ক্ষতিগ্রস্ত আহসান হাবিবের পরিবারকে শতাধিক গাছ উপহার দিয়েছেন পরিবেশবাদী সংগঠন \’গ্রিন সেভার্স অ্যাসোসিয়েশন\’।






বুধবার দুপুরে ভুক্তভোগী আহসান হাবিবের বাসায় গিয়ে এ গাছ উপহার তুলে দেয় সংগঠনটি।
এর আগে খালেদা আক্তার লাকি (৪৫) নামের এক নারী দা হাতে নিয়ে মারমুখি ভঙ্গিতে নির্বিচারে গাছ কেটে ফেলার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। এতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনার ঝড় ওঠে। পরে সাভার থানায় একটি অভিযোগ দায়ের হলে সকালে সেই নারীকে আটক করে পুলিশ।

গ্রিন সেভার্স অ্যাসোসিয়েশনের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি আহসান রনি জানান, যেভাবে গাছগুলোকে কাটা হয়েছে, সত্যি আমরা মর্মাহত। যাদের গাছ কাটা হয়েছে তাদের দুঃখ লাঘবে আমরা কিছু গাছ তাদের হাতে তুলে দিয়েছি। তাদের সুন্দর একটি বাগান সাজিয়ে দিতে চাই।

News Page Below Ad