স্ত্রী নির্যাতনের কারণে ওয়াশিংটনে বাংলাদেশ দূতাবাসের এক কর্মীকে যুক্তরাষ্ট্র ছাড়তে হচ্ছে। দূতাবাসের অফিস সহকারী (পাসপোর্ট ও ভিসা উইং) দেলোয়ার হোসেন মুচলেকা দিয়েও ছাড় পেলেন না।
পারিবারিক সহিংসতার অভিযোগের প্রমাণ পাওয়ায় আগামী ১২ মের মধ্যে তাকে ওয়াশিংটন ডিসি ছাড়তে বলেছে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তর ও ওয়াশিংটন পুলিশ।
বাংলাদেশ দূতাবাসের মিনিস্টার (প্রেস) শামীম আহমেদ বলেন, "ঢাকায় পাসপোর্ট ও ইমিগ্রেশন বিভাগের তৃতীয় শ্রেণীর কর্মচারী দেলোয়ার বছর দুয়েক আগে দূতাবাসে যোগ দিয়েছিলেন। এখন বউসহ তাকে ঢাকার কর্মস্থলে ফিরতে হচ্ছে।"
দেলোয়ারের বিরুদ্ধে স্ত্রী নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়ার পর তদন্তে নামে ওয়াশিংটন ডিসি পুলিশ। বাংলাদেশ মিশনও একটি ছায়া তদন্তে তিনজন কর্মকর্তাকে তার বাসায় পাঠায়।
দূতাবাস সূত্র জানায়, তদন্তে অভিযোগের সত্যতা প্রমাণিত হলে নিজেদের রক্ষায় ’বিরোধ মিটিয়ে ফেলেছেন’ বলে মিশনকে জানিয়েছিলেন দেলোয়ার ও তার স্ত্রী। এমন আচরণ ভবিষ্যতে আর হবে না বলে যৌথ মুচলেকাও দেন তারা। এরপর বাংলাদেশ দূতাবাস বিষয়টি জানিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরে যোগাযোগও করে। কিন্তু ফল হয়নি। সূত্র:বিডিমর্নিং
             
Comments