এবার শুধুমাত্র দ্বন্দ্বের জেরে গাজীপুর থেকে ঢাকা এনে ঠিকাদার শিরকে পাঠিয়ে দেওয়া হল না ফেরার দেশে। ঘটনার সূত্রে জানা গিয়েছে যে পারিবারিক কারণে কিছুদিন আগে গাজীপুরে গিয়েছিলেন তিনি এবং সন্ধ্যার দিকে তার ফোনে একটি কল আসে এবং গাজীপুরে সেই আত্মীয়র বাসা থেকে তিনি ঢাকায় আসেন এরপর বাসায় তিনি যখন আসেন তখন ঘরে না ঢুকে স্ত্রীর সঙ্গে কথা বলতে বলতে বেরিয়ে যান এরপর তিনি ঘরে ফেরেন নি এবং তার স্ত্রী জোসনা বেগম দুঃখজনক এই খবরটি শুনতে পান যে তার স্বামী আর নেই


পারিবারিক কারণে গত ৩ অক্টোবর গাজীপুর গিয়েছিলেন সিরাজুল ইসলাম সিরু। সন্ধ্যার ঠিক আগে একটি কল আসে সিরুর মোবাইল ফোনে। এরপরই গাজীপুরের আত্মীয়ের বাসা থেকে ঢাকার শেখেরটেকের বাসায় ফিরে আসেন তিনি। ঘরে না ঢুকেই স্ত্রীর সঙ্গে কথা বলতে বলতে বেরিয়ে যান। এরপর রাত সাড়ে ৯টার দিকে সিরু/হ/ত্যা/র/ খবর পান স্ত্রী জোছনা বেগম।

পরিবার বলছে, স্থানীয় প্রভাবশালী /ও /মা/দ//ক/ কা/রবারিদের যোগসাজশে সিরু/কে /হ/ত্যা/ ক/রা হয়ে থাকতে পারে। তদন্ত সংশ্লিষ্টরা বলছেন, বিভিন্ন বিষয়ে দ্বন্দ্বের জে/রে/ হ/ত্যা/ ক/রা হয়েছে সিরুকে।

মোহাম্মদপুর থানা পুলিশ ও র‍্যাব-২ সূত্রে জানা যায়, মোহাম্মদপুরের ঢাকা উদ্যানের একতা হাউজিং এলাকায় গত ৩ অক্টোবর রাতে ৬-৭ জনের অংশগ্রহণে ঠিকাদার সিরাজুল ইসলাম সিরুকে /কু/পি/য়ে/ /হ/ত্যা/ ক/রা হয় ।

স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে রাত ৯টার দিকে ম/র/দে/হ উদ্ধার করে পুলিশ। সি/রু /হ/ত্যা/র/ পর অজ্ঞাতদের আসামি করে তার স্ত্রী জোছনা বেগম মোহাম্মদপুর থানায় মামলা করেন।

জোছনা বেগম বলেন, ’আমার স্বামীর সাথে কারও শত্রুতা বা দ্বন্দ্বের তথ্য এর আগে কখনো পাইনি। সেদিন বাসায় এসেও ঘরে ঢোকেননি তিনি। তার ঢাকায় ফেরার খবরে রাতের খাবারের ব্যবস্থাও করেছিলাম। কিন্তু লোকটাকে রাতে আর খেতে দিতে পারিনি। ফিরেছেন লা/শ হয়ে। তাকে যারা/ /হ/ত্যা/ ক/রেছে আমি তাদের ফাঁসি চাই।’

সিরু /হ/ত্যা//য়/ সরাসরি জড়িত থাকার অভিযোগে ওই মামলায় র‍্যাব দুজন ও পুলিশ তিনজনকে গ্রেফতার করে । এর মধ্যে সুজন মিয়া, সজীব হোসেন রুবেল, অহিদ ও তানভীর নামে চারজন ১৬৪ ধারায় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। সুমন শেখ নামে আরেকজন দুদিনের রিমান্ডে রয়েছেন।

রাজধানীতে প্রতিনিয়ত ঘটে নানান ধরনের ঘটনা তবে এবার রাজধানীর শেখের টেকের বাসায় ফিরে ঠিকাদার সিরু চলে গেল না ফেরার দেশে। তবে এই ঘটনা প্রেক্ষিতে কি রয়েছে তা এখনো ভালোভাবে জানা যায়নি পুলিশ ঘটনার তদন্ত করছে এবং কার স্ত্রী জোসনা বেগম বলছেন যে তার স্বামীর সাথে কারো শত্রুতা আছে এমন খবর তিনি আগে পাননি

News Page Below Ad