সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি বিজ্ঞাপনচিত্র ভাইরাল হয়েছে যেটি নিয়ে ব্যাপক হাসাহাসি এবং ট্রল চলছে মূলত এটি একটি ফার্নিচারের বিজ্ঞাপন এবং এই বিজ্ঞাপনটি নিয়ে মানুষের মধ্যে নানান তীর্যক মন্তব্য তৈরি হওয়ার কারণ হচ্ছে নিম্নমানের এ বিজ্ঞাপনের ধরণ দেখে যেখানে প্রতিটি পণ্যের বিজ্ঞাপন চাকচিক্য তা এবং আড়ম্বরপূর্ণ সেখানে একেবারে নিম্নমানের সস্তা বিজ্ঞাপন প্রচার করার কারণেই এই আলোচনা শুরু হয়েছে


সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভা’ইরা’ল হওয়ার পর কাকলি ফার্নিচারের একাধিক ফেসবুক আইডি, পেজ ও গ্রুপ খোলা হয়েছে। বিষয়টি নজরে আসায় থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছেন প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান এসএম সোহেল রানা। রোববার (৩০ মে) রাত ১১টায় গাজীপুরের শ্রীপুর থানায় তিনি সাধারণ ডায়েরি করেন।



সাধারণ ডায়েরি প্রসঙ্গে চেয়ারম্যান এস এম সোহেল রানা বলেন, দামে কম মানে ভালো কাকলি ফার্নিচার শ্লোগানের বিজ্ঞাপনটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভা’ইরা’ল হয়েছে। ভা’ইরা’ল হওয়ার পর থেকে ফেসবুকসহ অন্যান্য সামাজিক মাধ্যমে কাকলি ফার্নিচারের নামে একাধিক ফেসবুক আইডি ও পেজ এবং গ্রুপ খোলা হয়েছে।



এতে গ্রাহকদের প্র’তারি’ত হওয়ার আশ’ঙ্কা রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, প্রতিষ্ঠানের জনপ্রিয়তায় ই’র্ষান্বিত হয়ে ক্ষ’তি করার লক্ষ্যে তারা এমন কাজ করছে। তিনি আরও বলেন, কেউ কেউ ভা’ইরা’ল মুহূর্তে শখের বসে, সৎ উদ্দেশ্যে পেজ, আইডি খুলতে পারেন। ওই আইডি, পেজ ও গ্রুপগুলো বন্ধ করতে অনুরোধ জানান তিনি। কাকলি ফার্নিচারের গ্রাহকদের সচে’তন হওয়ার অনুরোধ করেন তিনি।



শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. মাহবুব আলম জানান, এ বিষয়ে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন প্রতিষ্ঠানটির মালিক। পরবর্তী আই’নগত ব্যবস্থা গ্রহণ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। উল্লেখ্য, ভারতের পশ্চিমবঙ্গের পর বাংলাদেশে ভা’ইরা’ল হয়েছে দামে কম মানে ভাল কাকলি ফার্নিচারের বিজ্ঞাপন।


বর্তমানে কাকলি ফার্নিচারের যে বিজ্ঞাপন সিটি নিয়ে আলোচনা চলছে সর্বত্র এমনকি দেশের গণ্ডি পেরিয়ে পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতেও এই বিজ্ঞাপনটি নিয়ে ব্যাপক হাসাহাসি চলছে মূলত একটি ফার্নিচার এর বিজ্ঞাপনের ক্ষেত্রে এই প্রচার করা হয় এবং সেটি দ্রুতই ভাইরাল হয়ে যায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তবে এত কিছু হওয়ার পর এই ফার্নিচার এর মালিক জানান যে মানুষ ইতিবাচক বা নেতিবাচক তার ফার্নিচারের প্রচার হচ্ছে এটাই সব থেকে বড় কথা

News Page Below Ad